মোঃ মোশারফ হোসেন,কাউনিয়া রংপুর প্রতিনিধিঃ

“শ্রমিক-মালিক গড়ব দেশ, স্মার্ট হবে বাংলাদেশ ” এ শ্লোগান নিয়ে সারাদেশের ন্যায় বুধবার রংপুরের  কাউনিয়ায় পালিত হয়েছে মহান মে দিবস।বুধবার  সকাল ১১ ঘটিকায় মধুপুর রোড অটো ও মিশুক মালিক সমিতি এবং ইসলামি শ্রমিক  আন্দোলন বাংলাদেশসহ বিভিন্ন সংগঠন উপজেলার প্রধান প্রধান সড়কে বর্ণাঢ্য র‍্যালি করেন। র‍্যালি শেষে এক আলোচনা সভা গালর্স স্কুল মোড়ে অনুষ্ঠিত হয়েছে।
এসময় বক্তব্য রাখেন কাউনিয়া ,উপজেলা যুবলীগের সাবেক যুগ্ন আহব্বায়ক ইউসুফ আলী, মধুপুর রোড অটো ও মিশুক মালিক সমিতির সভাপতি আশরাফুল ইসলাম দুদু,রিকসা শ্রমিক সমিতির সভাপতি, মোঃ আব্দুল কাদের
সাধারণ সম্পাদক মোঃ জহুরুল ইসলাম, ইউপি সদস্য মোঃ আনোয়ার হোসেন প্রমূখ।উল্লেখ্য যে,১৮৮৬ সালের এদিনে যুক্তরাষ্ট্রের শিকাগো শহরের হে মার্কেটের শ্রমিকরা ৮ ঘণ্টা কাজের দাবিতে জীবন উৎসর্গ করেছিলেন। ওই সময়ে আন্দোলনরত শ্রমিকদের ঘিরে থাকা পুলিশের প্রতি অজ্ঞাতনামা কেউ বোমা নিক্ষেপ করলে পুলিশ শ্রমিকদের ওপর গুলি চালায়। এতে ১০-১২ জন শ্রমিক ও পুলিশ নিহত হয়। ওইদিন তাদের আত্মত্যাগের মধ্য দিয়ে বিশ্বে শ্রমিকের অধিকার প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল। অর্থাৎ শিকাগোর হে মার্কেটে দিনে ৮ ঘণ্টা কাজের দাবিতে অধিকার প্রতিষ্ঠার আন্দোলন করতে গিয়ে কয়েকজন শ্রমিককে জীবন দিতে হয়। তবে দিবস পালনের সিদ্ধান্ত হয় আরও পরে। ১৮৮৯ সালে ফরাসি বিপ্লবের শতবার্ষিকীতে প্যারিসে দ্বিতীয় আন্তর্জাতিক কংগ্রেস অনুষ্ঠিত হয়। সেখানে ১৮৯০ সাল থেকে শিকাগো প্রতিবাদের বার্ষিকী আন্তর্জাতিকভাবে বিভিন্ন দেশে পালনের প্রস্তাব করেন রেমন্ড লাভিনে। ১৮৯১ সালে আন্তর্জাতিক কংগ্রেসে এ প্রস্তাব গৃহীত হয়। এরপর ১৮৯৪ সালে মে দিবসের দাঙ্গার ঘটনা ঘটে। এরই ধারবাহিকতায় ১০০ বছর পর ১৯০৪ সালে আমস্টারডাম শহরে অনুষ্ঠিত সমাজতন্ত্রীদের আন্তর্জাতিক সম্মেলনে এ উপলক্ষ্যে একটি প্রস্তাব গৃহীত হয়। ওই প্রস্তাবে বিশ্বজুড়ে সব শ্রমিক সংগঠন ১ মে ‘বাধ্যতামূলকভাবে কাজ না করার’ সিদ্ধান্ত নেন। এরপর থেকে সারা বিশ্বে দিনটি ‘মে দিবস’ হিসাবে পালিত হয়ে আসছে।