মোঃ মিঠু মিয়া, গাইবান্ধা জেলা প্রতিনিধিঃ

ইউনিয়ন রেজিঃ নং- রাজ-২৭৭৯ এর মেয়াদ উত্তীর্ণ কমিটির কর্মকা- বন্ধ ও নির্বাচনের দাবী
গাইবান্ধা জেলা ট্রাক, ট্যাংকলড়ী ও কাভার্ডভ্যান পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়নের মেয়াদ উত্তীর্ণ কমিটি ক্ষমতা কুক্ষিগত করে শ্রমিকদের মাসিক চাঁদা, নতুন সদস্য ভর্তি করে পুরো টাকাই লোপাট করছে বলে এক অভিযোগ পত্র থেকে জানা গেছে।
অভিযোগ থেকে জানা যায়, গাইবান্ধা জেলা ট্রাক, ট্যাংকলড়ী ও কাভার্ডভ্যান পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়ন রেজিঃ নং- রাজ-২৭৭৯ এর কার্যনির্বাহী কমিটির মেয়াদ শেষ হয়েছে ২০২৩ সালের ১৪ ফেব্রুয়ারি। ২০২০ সালের ১৪ ফেব্রুয়ারি শ্রমিকদের স্বতঃস্ফূর্ত অংশগ্রহণে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। তিন বছরের জন্য নির্বাচিতরা তাদের কার্যক্রম পরিচালনা করে। মেয়াদ শেষ হওয়ার পর নির্বাচন দেয়ার বিধান থাকলেও মেয়াদ উত্তীর্ণের পর ১বছর অতিবাহিত হয়ে গেলেও উক্ত কমিটি নির্বাচন না দিয়ে কৌশলে মেয়াদ উত্তীর্ণ কমিটির সদস্যরা অবৈধভাবে শ্রমিকদের মাসিক চাঁদা আদায়সহ নতুন সদস্য ভর্তি করছে। তাদের কাছ থেকে আদায়কৃত টাকা সমিতিতে জমা না করে নিজেদের মধ্যে সেই টাকা ভাগাভাগি করে নিচ্ছে। এতে করে সাধারণ শ্রমিকদের মধ্যে প্রচন্ড ক্ষোভ দেখা দিয়েছে এবং তাদের মধ্যে মারাত্মক উত্তেজনা বিরাজ করছে। যে কোন মূহুর্তে অপ্রীতিকর ঘটনার জন্ম হতে পারে বলে অনেক শ্রমিক আশংকা প্রকাশ করেছে। সাধারণ শ্রমিকরা নির্বাচনের দাবীতে অনড় থেকে মোঃ রঞ্জু মিয়া ড্রাইভারকে আহবায়ক করে নির্বাচন আন্দোলন কমিটি গঠন করা হয়। কমিটির অন্য সদস্যরা হলেন মোঃ আনসার আলী ড্রাইভার, সাদা মিয়া ড্রাইভার, ড্রাইভার জোহা, মোস্তফা ড্রাইভার। সাধারণ শ্রমিকদের পক্ষ থেকে নির্বাচন আন্দোলন কমিটির হাতে ক্ষমতা হস্তান্তর করার জন্য কমিটিকে বলা হলে, তারা সাধারণ শ্রমিকদের বিভিন্ন ভয়ভীতি দেখিয়ে ক্ষমতা কুক্ষিগত করে রেখেছে।
এ ব্যাপারে অত্র সংগঠনের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক বরাবর লিখিত অভিযোগ করা হয়েছে এবং এর অনুলিপি গাইবান্ধা জেলা প্রশাসন, পুলিশ সুপার, জেলা শ্রম অধিদপ্তর, সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশনসহ বেশ কয়েকটি সংগঠন বরাবর প্রেরণ করা হয়েছে।

জেলা প্রশাসকের কাছে সঠিক তদন্ত করা হোক