মোঃউজ্জল হোসেন, ধামইরহাট (নওগাঁ) প্রতিনিধিঃ

নওগাঁর ধামইরহাটে গৃহবধু আয়না হত্যা মামলার মূল পরিকল্পনাকারী শাশুড়ি, স্বামী ও দেবর কে ঢাকার আদাবর নামক এলাকা থেকে যৌথ অভিযানে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব। আটককৃত আসামীরা হলো- ধামইরহাট উপজেলার বিহারীনগর গ্রামের খোরশেদ আলমের স্ত্রী আমেনা বেগম এবং ছেলে মো. নুরুল আমিন ওরফে এরশাদ (৩২) ও মো. শাকিল হোসেন (২২)।

মঙ্গলবার (২৬ মার্চ) বিকেলে র‍্যাবের পাঠানো প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য নিশ্চিত করা হয়। র‍্যাব জানায়, গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে র‌্যাব-৫, সিপিসি-৩ জয়পুরহাট এর অভিযানিক দল (২৬ মার্চ) ভোর ৫টা ৪৫ মিনিটে ঢাকা জেলার আদাবর থানাধীন সুনিবির হাউজিং এলাকা হতে আমেনা হত্যা মামলার এজাহার নামীয় পলাতক আসামীদেরকে গ্রেফতার করে।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, গত ১২ মার্চ ধামইরহাট উপজেলার উমার ইউনিয়নের বিহারীনগর গ্রামের নরুল আমিন ওরফে এরশাদ এর স্ত্রী মহসিনা খাতুন ওরফে আয়না (৩০) কে ভোর রাতে বাড়ীর পূর্ব পার্শ্বে একটি আম গাছে গলায় ফাঁস দেওয়া অবস্থায় দেখতে পায় পরিবারের সদস্যরা। পরবর্তীতে পরিবারের লোকজন থানা পুলিশ কে খবর দিলে সকালে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে।

উল্লেখ্য যে, মৃত আয়না আক্তারের সাথে তার শাশুড়ী আমেনা, স্বামী এরশাদ ও দেবর শাকিল এর সাথে প্রায়ই বাবার বাড়ি থেকে যৌতুকের টাকা, সোফা সেট, আলমীরা ও খাট ইত্যাদি আনার জন্য বিরোধ লেগেই থাকতো। বিরোধের জের ধরে হত্যার মূল পরিকল্পনাকারী শাশুড়ী আমেনা, স্বামী এরশাদ, দেবর শাকিল এবং আমেনার জামাতা বিদ্যুৎ তাকে পিটিয়ে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আম গাছে ঝুলিয়ে রেখেছে বলে জানান মৃতের স্বজনরা। মৃতের চাচা আব্দুল হামিদ বাদী হয়ে ধামইরহাট থানায় ভাতিজিকে শ্বাসরোধে হত্যার দায়ে একটি হত্যা মামলা রুজু করেন।

মামলার রুজু হওয়ার পর থেকেই শাশুড়ী আমেনা, স্বামী এরশাদ, দেবর শাকিল ও আমেনার জামাতা বিদ্যুৎ আত্নগোপনে চলে গেলে র‌্যাব-৫, সিপিসি-৩ এর একটি অভিযানিক দল গত (২৩ মার্চ) আমেনার জামাতা বিদ্যুৎ কে নওগাঁর ধামইরহাট উপজেলার গোপিরামপুর নামক এলাকা থেকে গ্রেফতার করে এবং আমেনা, এরশাদ ও শাকিল কে গ্রেফতারের জন্য বিভিন্ন জায়গায় অভিযান চালায়।

পরবর্তীতে র‌্যাব-২, সিপিসি-১ এর সহায়তায় হত্যার মূল পরিকল্পনাকারী আমেনা, স্বামী এরশাদ ও দেবর শাকিল কে ঢাকা জেলার আদাবর থানাধীন সুনিবির হাউজিং এলাকায় আত্নগোপনে থাকাকালে তাদেরকে গ্রেপ্তার করে বলে প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয় ।