জেলা প্রতিনিধি কিশোরগঞ্জঃ- মোঃ সাইদুল ইসলাম:- কিশোরগঞ্জে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে বাস খাদে পড়ে আহত অন্তত ২০ জন যাত্রী। এই দুর্ঘটনায় কোন যাত্রীর নিহতের খবর মেলেনি। রবিবার, ২০ অগাস্ট দুপুর আনুমানিক ২ টার দিকে কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলার রশিদাবাদ ইউপি নামক স্হানে এই দুর্ঘটনা ঘটে, আহতরা নেত্রকোণার কলমাকান্দার সদর ইউনিয়ন ও রংগাতিসহ বিভিন্ন গ্রামের বাসিন্দা এবং মাইজভাণ্ডার শরীফের ভক্ত। ঘটনা সুত্রে জানা যায় চট্রগ্রামের ফটিকছড়ির মাইজভাণ্ডার শরীফ থেকে ৬০ জন ভক্তের একটি কাফেলা ইমাম পরিবহন নামক বাসে করে নেত্রকোণার কলমাকান্দা উপজেলায় ফিরছিল। পথিমধ্যে কিশোরগঞ্জ-ভৈরব মহাসড়কের রশিদবাদ ইউনিয়ন পরিষদের সামনে বাসটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে খাদে উল্টে পড়ে যায়। এই ঘটনায় নারী-পুরুষসহ অন্তত ২০ জন আহত হয়েছে। আহতদের দ্রুত চিকিৎসার জন্য কিশোরগঞ্জ সদর ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। খবর পেয়ে কিশোরগঞ্জ সদর মডেল থানা পুলিশের একটি বিশেষ দল ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে। এ ঘটনায় সঙ্গে সঙ্গে অত্র এলাকার স্থানীয় কিছু বাসিন্দা প্রাথমিকভাবে বাসটির উদ্ধার কাজে অংশ নেয়, পরে খবর পেয়ে উদ্ধার কাজে যুক্ত হয় কিশোরগঞ্জ জেলার ফায়ার সার্ভিস এর একটি চৌকস উদ্ধার দল। কিশোরগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন কর্মকর্তা আবুজর গিফারী জানান, আমরা খবর পেয়ে সঙ্গে সঙ্গেই উদ্ধার তৎপরতা দ্রুত শুরু করি। রবিবার বিকেল ৫টা পর্যন্ত আমাদের এই উদ্ধার অভিযান শেষ হয়। এ ঘটনায় বেশ কিছু যাত্রী আহত হলেও নিহতের কোন খবর মিলেনি এবং রিপোর্ট লিখার আগ পর্যন্ত থানায় ও কোন মামলা হয়নি। এই আকষ্মিক দুর্ঘটনাটি খতিতে দেখছেন কিশোরগঞ্জের পুলিশ প্রশাসন ও জেলা পরিবহন মালিক সমিতি নেতৃবৃন্দ।