সবুজ শিকদার,জেলা প্রতিনিধি বাগেরহাটঃ

বাগেরহাটের রামপালে ১৪ বছর বয়সী এক স্কুলছাত্রীকে তুলে নিয়ে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ মামলার প্রধান আসামী রহম আলীকে (২০) গ্রেফতার করেছে ব্যাব। শনিবার (৭ অক্টোবর) দুপুরে র‌্যাব -৬ এর মিডিয়া সেলের এক প্রেস ব্রিফিংএ এ তথ্য নিশ্চিত করা হয়েছে। আটক রহমত আলী (২০) রামপাল উপজেলার গোবিন্দপুর গ্রামের মোঃ মাহবুবুর রহমানের ছেলে।এর আগে গত ২৯ সেপ্টেম্বর (শুক্রবার) সন্ধ্যা ৬টার দিকে রামপাল থানার বড় দূর্গাপুর পুটিমারি গ্রামের স্থানীয় পলাশের ঘেরের টংঘরে ওই সংঘবদ্ধ ধর্ষণের ঘটনা ঘটে। পুলিশ রাতেই অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত ৩ জনের মধ্যে রাকিব হোসেন সজল (২৫) ও রাসেল শেখ (২৬) নামে দুই যুবককে গ্রেপ্তার করেছে।

গ্রেপ্তার রাসেল শেখ রামপাল উপজেলার পাড়গোবিন্দপুর গ্রামের ফরহাদ শেখের ছেলে ও রাকিব হোসেন সজল কালেখার গ্রামের আজমল হোসেন এর ছেলে এবং অপর অভিযুক্ত গোবিন্দপুর গ্রামের মোঃ মাহবুবুর রহমানের ছেলে রহমত আলী (২০) এ সময় পলাতক ছিল।র‌্যাবের মিডিয়া সেল জানান, র‌্যাব-৬ (সদর কোম্পানি) খুলনার একটি চৌকস আভিযানিক দল গত ৬ অক্টোবর গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ঢাকার গাজীপুর চৌরাস্তা  এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে গণধর্ষণ মামলার প্রধান পলাতক আসামী রহমত আলীকে (২০) গ্রেফতার করে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আসামী ধর্ষণের সাথে জড়িত থাকার বিষয়টি স্বীকার করেছে বলেও জানান র‌্যাব।

রামপাল থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) এস এম আশরাফুল আলম জানান, র‌্যাব-৬ (সদর কোম্পানি) খুলনার একটি চৌকস আভিযানিক দল গত ৬ অক্টোবর বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ঢাকার গাজীপুর চৌরাস্তা এলাকায় অভিযান চালিয়ে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ মামলার প্রধান পলাতক আসামী রহমত আলীকে (২০) গ্রেফতার করে আজ শনিবার (৭ অক্টোবর) রামপাল থানায় হস্থান্তর করে। আমরা আসামী রহমত আলীকে বাগেরহাট বিজ্ঞ আদালতে প্রেরন করেছি।