উচ্চপ্রু মারমা সবুজ,রাজস্হলী রাঙ্গামাটিঃ

শারদীয় দুর্গাপূজা উপলক্ষে রাঙামাটি রাজস্থলী উপজেলাধীন ৩নং বাঙ্গালহালিয়াতে শারদীয় দুর্গাপূজা উপলক্ষে তিন টি পুজা মণ্ডপ পরিদর্শন করেছেন রাজস্থলী উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান উবাচ মারমা।

রবিবার (২২অক্টোবর) বিকালে মহা অষ্টমীতে রাজস্থলী উপজেলা নির্বাহী অফিসার শান্তনু কুমার দাশ,৩নং বাঙ্গালহালিয়া ইউপি চেযারম্যান আদোমং মারমা, সাবেক চেয়ারম্যান ঞোমং মারমা সহ কমিটির অন্যান্য নেতৃবৃন্দরা মন্দির পরিদর্শনে গিয়ে স্থানীয় নেতা, মণ্ডপের পূজারী, ভক্ত ও পূণ্যর্থীদের সঙ্গে শারদীয় শুভেচ্ছা বিনিময় করেন ও পূজার আইন শৃংঙ্খলাসহ সার্বিক পরিস্থিতির খোঁজ খবর নেন।

পরিদর্শন কালে চেয়ারম্যান উবাচ মারমা বলেন, যেকোন উৎসবে পার্বত্যাঞ্চলে সকল সম্প্রদায়ের মিলন মেলায় পরিণত হয়। শান্তি এবং সম্প্রতি বজায় রেখে যেন শারদীয় দুর্গা উৎসব পালন করা হয় সেই প্রত্যাশা করি।
তিনি বলেন জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর কন্যা প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী

শেখ হাসিনার সরকার ক্ষমতায় আসার পর থেকে সনাতন সম্প্রদায়সহ সকল ধর্মের মানুষরা কোনও দুশ্চিন্তা ছাড়া নির্বিঘ্নে ধর্মীয় রীতিনীতি অনুযায়ী ধর্মীয় উৎসব পালন করছেন। যা সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি সৃষ্টিতে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অনন্য দৃষ্টান্ত। আর দুর্গোৎসব ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে সবার মাঝে সম্প্রীতি ও সৌহার্দ্যের বন্ধনকে আরও সুদৃঢ় ও সুসংহত করবে। কোন অশুভ শক্তি যেন এই সম্প্রীতি ও সৌহার্দ্যকে ধ্বংস করতে না পারে সেদিকে সবাইকে সজাগ থাকার উদাত্ত আহবান জানান তিনি।
অষ্টম দিন রাত্রে চট্টগ্রাম রেঞ্জের ডিআইজি জনাব নুরেআলম মিনা, বিপিএম (বার), পিপিএম এর নির্দেশে চন্দ্রঘোনা থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ শফিউল আজম সংগীয় অফিসার ও ফোর্সসহ রাজস্থলী উপজেলার বাঙ্গালহালিয়া পূজা মন্ডপে শুভেচ্ছা উপহার পূজা উদযাপন কমিটির নেতৃবৃন্দের নিকট প্রদান করেন।
পূজা মণ্ডপ পরিদর্শন করে তিনি বলেন প্রতিমা বিসর্জন পর্যন্ত সনাতন ধর্মাবলম্বীরা যাতে সর্ববৃহৎ ধর্মীয় উৎসব দুর্গা পূজা আনন্দের মধ্যে দিয়ে  সুন্দর ভাবে উদযাপন করতে পারে সেদিকে পুলিশ এর পক্ষ হতে  সার্বক্ষনিক নজরদারি থাকবে।