জেলা প্রতিনিধি:- মোঃ সাইদুল ইসলাম : কিশোরগঞ্জে মসজিদ পরিচালনা কমিটি নিয়ে বিরোধের জের ধরে ইমাম ও মোয়াজ্জিনকে কুপিয়ে জখম করা হয়েছে। সোমবার (১১ সেপ্টেম্বর) সকালে সদর উপজেলার মহিনন্দ ইউনিয়নের চংশোলাকিয়া এলাকায় পঁচুশাহ ফকির মসজিদের সামনে এ ঘটনা ঘটে। আহত রবিউল ইসলাম পঁচুশাহ ফকির মসজিদের ইমাম ও করিমগঞ্জ উপজেলার নিয়ামতপুর গ্রামের বাসিন্দা এবং একই মসজিদের মুয়াজ্জিন আরমান মিয়া চংশোলাকিয়া এলাকার বাসিন্দা। আরমান মসজিদসংলগ্ন ফোরকানিয়া মাদ্রাসার হেফজ শ্রেণির ছাত্র। এদিকে এ ঘটনার পর স্থানীয়রা হামলাকারী নুরুল আমিন ও রমজান মিয়াকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছে। স্থানীয়রা জানান, মসজিদ পরিচালনা কমিটি নিয়ে ইমামের সঙ্গে নুরুল আমিন ও রমজান আলীর বিরোধ ছিল। এরই জেরে সকালে মসজিদের সামনে কথাকাটাকাটির একপর্যায়ে ইমাম রবিউল ইসলামকে কুপিয়ে আহত করেন তারা। এ সময় মোয়াজ্জিন আরমান ইমামকে বাঁচাতে গেলে তাকেও কুপিয়ে জখম করা হয়। গুরুতর আহত অবস্থায় তাদের উদ্ধার করে কিশোরগঞ্জ ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। কিশোরগঞ্জ মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ দাউদ বলেন, এ ঘটনায় কিশোরগঞ্জ সদর মহিনন্দের চংশোলাকিয়া গ্রামের বাসিন্দা মৃত মনফর আলীর ছেলে আমিন ও আজিম উদ্দিনের ছেলে রমজান নামে দুজনকে আটক করা হয়েছে।