এ এম রিয়াজ কামাল হিরণ, চট্টগ্রাম জেলা প্রতিনিধিঃ

আওয়ামী দুঃশাসনে দেশের জনগণ আজ চরমভাবে অতিষ্ঠ যার কারণে জনরায়ের ভয়ে তারা আতংকিত।ভোটের নামে প্রহসনের মাধ্যমে একটানা তিনবার ক্ষমতা ভোগের ধারাবাহিকতাকে প্রলম্বিত করে স্বাধীন দেশকে পরাধীনতার শৃংখলে আবদ্ধ করতে চায়।

তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশ একটি ব্যর্থ রাষ্ট্রে পরিণত হতে চলেছে। ফ্যাসিবাদ, স্বৈরাচার ও ধ্বংসাত্মক এ সরকারকে বিদায় করে সাফল্য ও সমৃদ্ধের সত্যিকারের স্বাধীন বাংলাদেশ পুনর্গঠন করতে হবে।আমরা এমন একটি পরিবর্তন চাই, যা হবে নিজের, পরিবারের, সমাজের এবং দেশের জন্য কল্যাণকর। আর এ জন্য কঠোর পরিশ্রম করে এগিয়ে যেতে হবে।’
শুক্রবার (১ সেপ্টেম্বর) বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী চট্টগ্রাম মহানগরীর ডবলমুরিং থানা আয়োজিত ভার্চুয়াল কর্মী সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ মন্তব্য করেন।

মুহাম্মদ শাহজাহান বলেন, ইসলামী আন্দোলনের কর্মীদেরকে সাহসী হতে হবে। ভয় করতে হবে কেবলমাত্র এক আল্লাহকে। বিশ্বনবী (সা:) বিশ্বের সবচেয়ে সাহসী ব্যক্তি ছিলেন। তাই তার পক্ষে একটি সফল বিপ্লব সাধন করা সম্ভব হয়েছিল। তাই ইসলামী আন্দোলনের কর্মীদের শাহাদতের তামান্নায় উজ্জীবিত হয়ে বীরত্ব, সাহসিকতা ও প্রজ্ঞার সাথেই ময়দানে অকুতোভয় সৈনিক হিসাবে কাজ করতে হবে। তাহলেই দ্বীনের বিজয় অবশ্যাম্ভাবী হয়ে উঠবে।

তিনি বলেন, আল্লাহ তা’য়ালা মু’মিনের জানমাল জান্নাতের বিনিময়ে কিনে নিয়েছেন। তাই আমাদেরকে জেল-জুলুম ও জীবনের ভয়ে কুন্ঠিত হলে চলবে না বরং সকল প্রতিকূলতা উপেক্ষা করেই দ্বীনকে বিজয়ী করার প্রচেষ্টা চালাতে হবে। কারণ, জীবন-মৃত্যু সহ সবকিছুই হয় আল্লাহর পক্ষ থেকেই। এর ব্যতিক্রম চিন্তা করা অবশ্যই শিরক। তাই ইসলামী আন্দোলনের কর্মীদেরকে দ্বীন সম্পর্কে স্বচ্ছ ও সহীহ জ্ঞান অর্জন করে তা জীবনের প্রতিটি ক্ষেত্রে যথাযথাভাবে বাস্তবায়ন করতে হবে। তিনি আল্লাহর আইন ও সৎলোকের শাসন প্রতিষ্ঠার জন্য সকলকে ময়দানে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করার আহবান জানান।
ডবলমুরিং থানা আমীর ফারুক আজমের সভাপতিত্বে সম্মেলনে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় মজলিশে শুরা সদস্য ও চট্টগ্রাম মহানগরী সেক্রেটারি অধ্যক্ষ মুহাম্মদ নুরুল আমিন।