মুহাম্মদ সাইদুল ইসলাম সানাউল্লাহ – গাজীপুর জেলা প্রতিনিধি:আজ বাদ জোহরের নামাজের পর জামিয়ার মসজিদে শায়েখে যাত্রাবাড়ী দাঃবাঃ গুরুত্বপূর্ণ প্রায় আলোচনা করেছেন।এই সময় তিনি শহীদ হাফেজ রেজাউল করীম সম্পর্কে বলেনআমার ছাত্ররা হল আমার প্রাণ। আমি অসুস্থ হলে দরস করালে সুস্থ হয়ে যায়। সুতরাং আমার কি কষ্ট কম হচ্ছে? এভাবে দুঃখ প্রকাশ করে কয়েকটি উল্লেখযোগ্য বিষয় বলেন–আমি গতকালই উপরে কথা বলেছি। আমি কট্টর প্রতিবাদ জানিয়েছি। এটাও বলেছি যে সে কিভাবে মারা গেল সেটা জানি না তবে, কেন মারা গেল(?)সেটার কঠিন বিচার করতে হবে। এবং এর ক্ষতি পূরণ দিতে হবে। সারা দেশের মাদারিসে কওমিয়ার ছাত্র ও উস্তাদগনের নিরাপত্তা দিতে হবে। এবং কারাবন্দী সকল আলেমদের দ্রুত মুক্তি দিতে হবে। তারা আমার থেকে ২-৪ দিন সময় নিয়েছে। এমন কঠিন বিবৃতি দিয়েছি যা আগামী ৭ দিনের মধ্যে সারা দেশের মানুষ জানতে পারবে। আমি তাদের স্বান্তনা নয়; আমি কাজ চাই।আমি নীরবে কাজ করতে ভালোবাসি। এবং আমি অলরেডি কাজ শুরু করে দিয়েছি যার কারনে প্রশাসনের লোকেরা বেশ কয়েকজন জোহরের আগে এসেই বসে আছে দফতরে। অথচ আমি ব্যস্ত বলে তাদেরকে বসিয়ে রেখেছি। শুনে রাখো- এ ঘটনা যদি কোন স্কুল-কলেজে হত তাহলে এতসময় দাঙ্গা-হাঙ্গামা শুরু হয়ে যেত। কিন্তু এটা মাদারিসে কওমিয়া। আমরা শান্তি প্রিয়। আর আমি এখন একা চলি না বেফাক, হাইয়া নিয়ে চলি। আর এই বিষয়ে সকলেই কথা বলছেন রাজনৈতিক, অরাজনৈতিক সবাই। এটা এখন জাতীয় ইস্যু হয়ে গেছে। তোমরা যারা কাজ করতেছো কর। শান্তিপূর্ণ ভাবে কর।আমি ছাত্রদের ব্যবহার করতে চাই না। আমি যে কোন বিষয় নিজেই সমাধান করার চেষ্টা করি। কাজ করতে হয় বুদ্ধি দিয়ে, জজবা দিয়ে নয়। আমার ৫২ বছরের অভিজ্ঞতায় আমি দেখেছি যখন একটা দুর্ঘটনা ঘটে এরপরে জ্বাঁলাও পোড়ও আন্দোলন ইত্যাদির ফলে দেখা যায় পরবর্তী বিশৃঙ্খলার বিচার করতে করতে প্রথম দুর্ঘটনা ঢাকা পড়ে যায়। তাই কৌশলে কাজ করতে হবে যেন আমাদের উদ্দেশ্য হাসিল হয়। যেন আমরা সুষ্ঠু এবং যথার্থ বিচার পাই।কওমি বিরোধী আমাদের মত লেবাসধারী একদল চাই আমরা মাঠে নামি, যারা কখনোই কওমি মাদ্রাসার ভালো চাই না। হিফাজতের ইস্যুতে মদি ইস্যুতে বিপদে ফেলেছিল। আমরা বিপদে পড়তে চাই না। সুতরাং ছাত্ররা তোমরা শান্ত থাকো। এবং আশা রাখো আগামী ৫-৭ দিনের মধ্যেই কাজ হবে ইনশাআল্লাহ। পরিশেষে তিনি মোনাজাতে করেন। হে আল্লাহ আমরা তো বেঁচে আছি কিন্তু আমাদের ভাই বেঁচে নাই। তুমি তার পরিবারকে সবরে জামিল দান করো! এবং তাকে জান্নাতুল ফেরদৌস নসিব করো!

আমিন…