মোঃ আজগার আলী, জেলা প্রতিনিধি সাতক্ষীরাঃসাতক্ষীরার কালিগঞ্জ উপজেলার নলতা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষকের পিটুনিতে রাজ প্রতাপ (১৫) নামে এক ছাত্রের মৃত্যু হয়েছে। রোববার দুপুর ১টার দিকে ঐ শিক্ষার্থী মারা যায়। রাজ প্রতাপ ঐ স্কুলের নবম শ্রেণির শিক্ষার্থী। আজ রোববার ১৬ই জুলাই কয়েকজন সহপাঠীকে নিয়ে সে স্কুলে জন্মদিন পালন করছিল। বিষয়টি ভালোভাবে নেননি স্কুলের শিক্ষক অবকাশ কুমার। তিনি জন্মদিন পালনকারী শিক্ষার্থীদের ধরে বেধড়ক মারপিট করেন।এতে রাজ প্রতাপ অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে বাড়ি পাঠিয়ে দেওয়া হয়। পথিমধ্যে সে আরো অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে হাসপাতালে নেওয়ার পথেই মারা যায়। এই ঘটনার পর স্কুলের সকল শিক্ষক পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। এদিকে স্কুলের শিক্ষার্থী অভিভাবক ও স্থানীয় স্কুল ক্যাম্পাস অবরুদ্ধ করে রাখে। উত্তেজিত জনতা এ সময় স্কুলের শিক্ষকদের রাখা মোটরসাইকেল ও অন্যান্য আসবাবপত্র ভাঙচুর করে। গোটা এলাকা এ সময় রণক্ষেত্রে পরিণত হয়।স্থানীয় জনতা এ সময় ৯৯৯ নাম্বারে ফোন করলে পুলিশ দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা করে। কিন্তু ততক্ষণে জনতার ক্ষোভ ছড়িয়ে পড়ে গোটা এলাকায়। প্রায় ছয় ঘন্টা পর সন্ধ্যা ছয়টার দিকে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আইনে পুলিশ। মরদেহ নিয়ে স্থানীয়রা মিছিল করে। স্থানীয় আহাদুজ্জামান, তুহিন, নাসিরুদ্দিনসহ অনেকেই এ তথ্য জানিয়ে তারা দোষী ব্যক্তির শাস্তির দাবি জানান। তবে পলাতক থাকায় স্কুলের প্রধান শিক্ষকসহ অন্য কারো বক্তব্য পাওয়া যায়নি। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত পুলিশ স্কুল ক্যাম্পাস ঘিরে রেখেছিল।